• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ১৯-১২-২০২২, সময়ঃ সন্ধ্যা ০৬:১৩
  • ৫৬ বার দেখা হয়েছে

এসকেএস ফাউণ্ডেশন কর্তৃক শীতার্ত পরিবারের জন্য কম্বল উপহার

এসকেএস ফাউণ্ডেশন কর্তৃক শীতার্ত পরিবারের জন্য কম্বল উপহার

নিজস্ব প্রতিবেদক ►

গাইবান্ধার বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা এসকেএস ফাউণ্ডেশন কর্তৃক শীতার্ত অসহায় দরিদ্র্য মানুষের মাঝে কম্বল উপহার। গাইবান্ধা জেলার সদর উপজেলার বোয়ালী ইউনিয়নের সাহেব উল্লাহ্ সরকার উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কম্বল উপহার প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকেন দেশের মাইক্রোক্রেডিট রেগুলেটরি অথরিটি’র (এমআরএ) এক্সিকিউটিভভাইস চেয়ারম্যান মোঃ ফসিউল্লাহ্।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিতি ছিলেন এসকেএস নির্বাহী প্রধান রাসেল আহম্মেদ লিটন, ক্রেডিড ডেভেলপমেন্ট ফাউণ্ডেশন চেয়ারম্যান মুর্শেদ আলম সরকার, নির্বাহী পরিচালক সিডিএফ মোঃ আব্দুল আউয়াল, বোয়ালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ শহীদুল ইসলাম সাবু এবং এসকেএস ফাউণ্ডেশনর বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ।

সোমবার (১৯ ডিসেম্বর) বোয়ালী ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম থেকে আসা অসহায় দরিদ্র্য বয়স্ক নারী পুরুষ, প্রতিবন্ধী, বিধবা, তালাকপ্রাপ্তা, নারী ও শিশু আয়নির্ভর চিহ্নিত ১০০০ পরিবারের হাতে কম্বল তুলে দেয়া হয়। 

কম্বল উপহার অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান কালে এমআরএ এক্সিকিউটিভভাইস চেয়ারম্যান মাঃ ফসিউল্লাহ্ বলেন,‘‘শীতের উপহার বিতরণ, আসলে তেমন বড় কিছু না। তার পরেও এসকেএস ফাউণ্ডেশন দরিদ্র মানুষের সঙ্গে আছে এটা বোঝা যায়। আপনাদের ভালো মন্দের সাথে তারা জড়িত। আমি এসকেএস ফাউণ্ডেশনকে ধন্যবাদ জানাই, এরকম একটি সুন্দর আয়োজন করার জন্য। আমি শুধু বলবো বাংলাদেশ কিন্তু এগিয়ে যাচ্ছে, আজ থেকে অনেক আগে কিন্তু বাংলাদেশ খারাপ ছিল।

স্বাধীনতার আগে আরও খারাপ ছিল। গাইবান্ধা জেলা প্রাকৃতিক দুর্যোগ কবলিত। সব কিছু মিলিয়ে বাংলাদেশ কিন্তু এগিয়ে যাচ্ছে। এটি বিজয়ের মাস, এই মাসে আমাদেও বিজয় হয়েছিলো। ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বরে। এই বিজয়ের মাসে আমরা স্মরন করি জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। যার জন্ম না হলে এ বাংলাদেশ হতো না। আমরা স্মরন করি সকল বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদদের। যাদের জীবন দিয়ে এদেশ স্বাধীন করে দিয়েছেন। বাংলাদেশ চলতে দুর্বার গতিতে। অদম্য অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে।’’ 

এসকেএস নির্বাহী প্রধান রাসেল আহম্মেদ লিটন বলেন,‘‘ক্ষুদ্র ঋনের সদস্যরা শুধু না, একদম পিছিয়ে পড়া হতদরিদ্র যারা ক্ষুদ্র ঋনে আসতে পারেনি তারাও কিন্ত এখানে আছে। এই মানুষগুলোর জন্যই এসকেএস, এসকেএস-এর জন্যই আপনে। সমস্ত এনজিও জন্য আপনে। গ্রামগঞ্জের মানুষের যদি উন্নয়ন হয়, তাহলে দেশের উন্নয়ন হবে। পৃথিবীর উন্নয়ন হবে। আমরা সেই জায়টিতে কাজ করছি।’’ 

এমআরএ এক্সিকিউটিভভাইস চেয়ারম্যানের দায়িত্ব গ্রহণের পর গাইবান্ধা জেলায় প্রথম সফর উপলক্ষে অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে এসকেএস ফাউণ্ডেশনর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন, কর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভা, ২০ ডিসেম্বর উত্তর হরিণ সিংহা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা সেবা ক্যাম্পের উদ্বোধন করবেন।

এছাড়াও তিনি- ২০ ডিসেম্বর সকালে এসকেএস ইন্ এ ক্রেডিড ডেভেলপমেন্ট ফাউণ্ডেশনের আয়োজনে অন্তর্ভূক্তিমূলক অর্থায়নে ক্ষুদ্র অর্থায়ন সংস্থাসমূহ-সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক সঙ্কট নিরসনে নীতিগত সংস্কার ও তহবিল সহযোগিতা সময়ের দাবী শীর্ষক আঞ্চলিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়