• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ১৮-১২-২০২২, সময়ঃ সকাল ১১:১৭
  • ৭৯ বার দেখা হয়েছে

খানসামার বেলান নদীর উপর নির্মানাধীন রাবার ড্যাম: বদলে যাবে চাষাবাদের চিত্র

খানসামার বেলান নদীর উপর নির্মানাধীন রাবার ড্যাম: বদলে যাবে চাষাবাদের চিত্র

সুলতান মাহমুদ চৌধুরী , দিনাজপুর ►

দিনাজপুর খানসামার ভাবকী ইউনিয়নের মাঝ দিয়ে প্রবাহিত বেলান নদীর উপর নির্মাণাধীন রাবার ড্যাম দৃশ্যমান হলে একই উপজেলার ১২টি গ্রামের মানুষ সুফল ভোগ করবেন।  রাবার ড্রামটি উদ্ধোধন হলে এই অঞ্চলের এক হাজার হেক্টর জমি সেচের আওতায় আসবে। এছাড়াও নদীর বাম ও ডান তীরে হেডার ট্যাংকসহ বারিড পাইপ নেটওয়ার্ক নির্মাণের ফলে রাবার ড্রামের ভাটির কৃষকরা পাবে সেচ সুবিধা। ফলে ৩৫০ মিটার দৈর্ঘ্য রাবার ড্রামের নির্মাণ কাজ শুরু হওয়ায় ওই ইউনিয়নের মানুষের মাঝে এখন বইছে আনন্দের বন্যা। চলমান কাজের গতি অব্যাহত থাকলে আগামী ২০২৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর এর নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে জানান সংশ্লিষ্ট কর্তৃপ।

সূত্র মতে, বেলান নদী বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের দিনাজপুর জেলার একটি নদী। সর্পিলাকার প্রকৃতি নদীটির দৈর্ঘ্য ২০ কিলোমিটার এবং গড় প্রস্থ ৩৫ মিটার। নদীটি নীলফামারী জেলা হতে উৎপত্তি হয়ে দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার পাকেরহাট ও কাচিনিয়াবাজার হয়ে চিরিরবন্দরের ভূষিবন্দর নামক স্থানে আত্রাই নদীতে গিয়ে মিলেছে। নীলফামারী সদরের গোড়গ্রাম ও খানসামার ভেড়ভেড়ি ইউনিয়নের বিলাঞ্চলের পানিই এ নদীর প্রধান পানি উৎস। বিগত ষাটের দশকেশুষ্ক মৌসুমেও বেলান নদীতে ব্যাপকভাবে পানি প্রবাহিত হতো। আর এ নদীর পানি দিয়ে সেচের মাধ্যমে কৃষি কাজে ব্যবহার করে এলাকার কৃষকরা নানা রকম ফসল উৎপাদন করতে পারতো। এছাড়াও নদীতে পানির পর্যাপ্ত প্রবাহ অব্যাহত থাকায় প্রচুর পরিমাণে মাছ উৎপাদন হতো। তাই সারা বছর এলাকার মৎস্যজীবী পরিবারগুলো নদী থেকে মাছ ধরে স্থানীয় বাজার বিক্রি করে জীবন নির্বাহ করে আসছিলেন।

কিন্তু দীর্ঘদিন যাবৎ বেলান নদীটি খনন করা হয়নি। এতে করে পলি পড়ে প্রায় ভরাট হয়ে গেছে নদীটি। ফলে শুষ্ক মৌসুমে এ নদীটি প্রায় পানি শূন্য হয়ে পড়ে। আর পানি না থাকায় নদীতে মাছের উৎপাদন মারাত্মকভাবে হ্রাস পেয়েছে। শুষ্ক মৌসুমে নদীতে পানি না থাকায় কৃষি কাজ করতে পারছেন না কৃষকেরা। তাই সেচের পানির অভাবে এলাকার অধিকাংশ জমি অনাবাদি অবস্থায় পড়ে থাকছে। এ অবস্থায় এলাকার কৃষক ও মৎস্যজীবী তথা সাধারণ মানুষের অর্থনৈতিক দিকটি বিবেচনায় নিয়ে কাচিনিয়া এলাকায় বেলান নদীতে রাবার ড্যাম নির্মাণ প্রকল্প গ্রহন করা হয়।আর এ প্রকল্পটিরমূল উদ্দেশ্য নির্মাণাধীন রাবার ড্যামের মাধ্যমে বেলান নদীর পানি সংরণ করে শুষ্ক মৌসুমে সেচ কাজে সুষ্ঠু ও পরিকল্পিত ব্যবহার করা।

কাচিনীয়া এলাকার বাসিন্দা পারভেজ কবির  জানান, শুষ্ক মৌসুমে নদীর পানি না থাকায় এবং ভূপৃষ্টে পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় বোরো আবাদ নিয়ে চরম দুঃশ্চিতায় পড়েন এলাকার কৃষকরা। এ সময় দেড় থেকে দুই শত ফুট গর্ত করে পাম্পের সাহায্যে বোরো জমিতে সেচ দিতে হয় তাদের।এতে ফসল ফলাতে অধিক ব্যয় হয়। অপরদিকে নদীটি পানি না থাকায় মাছের আকালে মৎস্যজীবী পরিবারগুলো নিদারুণ কষ্টে দিনাতিপাত করেন। তবেএ রাবার ড্যামটির মাধ্যমে পানি সংরণ হলে শুষ্ক মৌসুমে কৃষি ও মৎস্য উৎপাদনে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

পানি উন্নয়ণ বোর্ড সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) ুদ্রাকার পানি সম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের (২য় পর্যায়) এর আওতায় বেলান নদীতে ওই রাবার ড্যামটি নির্মাণ করা হচ্ছে। এ প্রকল্পের অধীনে ৩৫ মিটার দৈর্ঘ্যের রাবার ড্যামসহ পাম্প হাউজ, এপ্রোচ রোড, বেলান নদীর বাম ও ডান তীরে হেডার ট্যাংকসহ বারিড পাইপ নেটওয়ার্ক -১ নেটওয়ার্ক -২ নির্মাণ,পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির অফিস ঘর করা হবে। এছাড়া ৮ কিলোমিটার বেলান খাল, এক হাজার ৪৯০ মিটার মরা নদী ও ৭২৫ মিটার শাখা খাল খনন করা হবে। এটি  নির্মাণে ব্যয় বরাদ্দ ধরা হয়েছে ১৪ কোটি ১৫ লাখ ৭৬ হাজার টাকা। বাংলাদেশ সরকার ও  জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো- অপারেশন এজেন্সি (জাইকা) অর্থায়নে নির্মাণ হচ্ছে এ রাবার ড্যামটি।

সূত্রটি আরো জানায়, দিনাজপুর স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের তত্ত্বাবধায়নে খানসামা উপজেলার আগ্রা কাচিনিয়ার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এমআরআই-আরএটি (জেভি) এর নির্মাণ কাজ করছেন। গেল ২৪ অক্টোবর এটির নির্মাণ কাজ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে। দিনাজপুর-৪ (খানসামা-চিরিরবন্দর) আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এর নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেন। আগামী ২০২৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর বেলান নদীর ওপর নির্মাণাধীন রাবার ড্যামটির নির্মাণ কাজ শেষ হবে।

এদিকে, রাবার ড্যামটির মাধ্যমে বেলান নদীর পানি সংরণ করে সুষ্ঠু ও পরিকল্পিতভাবে ব্যবহারের জন্য  কাচিনিয়া বাজার বেলান খাল পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতি লিমিটেড নামে একটি সংগঠন গঠন করা হয়েছে। এর মোট সদস্য সংখ্যা ৬১৭ জন। এ সমিতির সভাপতি ভাবকী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম। তিনি জানান, ইতিমধ্যে সদস্যদের পর্যায়ক্রমে হাঁস-মুরগী পালন, মৎস্য চাষ, কৃষি উন্নয়ণে প্রশিনের মাধ্যমে দতা বৃদ্ধি করেছে প্রকল্প বাস্তবায়ণ প্রতিষ্ঠান জাইকা।

সওে জমিনে এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, বেলান নদীতে রাবার ড্যাম নির্মাণ কাজ দ্রæতগতিতে এগিয়ে চলছে। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের লোকজন ভেক্যু মেশিন দিয়ে নদীর তলদেশের মাটি কেটে সমান্তরাল করছেন। সেই সঙ্গে অন্যান্য কাজও অব্যাহত রয়েছে।

ভাবকী ইউনিয়ন পরিষদ বর্তমান চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম তুহিন বলেন,এতে এলাকার পরিবেশের ভারসাম্য রা ও সাধারণ মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নয়ন ঘটবে নিশ্চিত। তবে কাচিনিয়া বাজার বেলান খাল পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতি লিমিটেডে প্রকল্পটির সুবিধাভোগী অনেক কৃষক ও মৎস্যজীবিদের সদস্য করা হয়নি বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এ বিষয়ে কথা হয় খানসামা উপজেলা প্রকৌশলী ওবায়দুর রহমানের সাথে। তিনি বলেন,রাবার ড্যামের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হলে এ অঞ্চলের মানুষের কৃষিেেত্রর পাশাপাশি গোবাদি পশু পালন, মাছ চাষের ফলে অর্থনৈতিকভাবে স্বাভলম্বী হবে। এছাড়া রাবার ড্যামের ওপর সেতু নির্মানের ফলে নদীর উভয় তীরের মানুষ বিশেষ করে বর্ষাকালে যাতায়াতের দূর্ভোগ লাঘব হবে।নির্দিষ্ট সময়ে প্রকল্পটির কাজ শেষ হবে বলে তিনি আশা করেন।
 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়