• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ৬-১১-২০২২, সময়ঃ দুপুর ০২:৪২
  • ৬৮ বার দেখা হয়েছে

গাইবান্ধায় দোকানঘর ভাড়া নেয়ার কথা বলে জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ

 গাইবান্ধায় দোকানঘর ভাড়া নেয়ার কথা বলে জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক ►

গাইবান্ধা জেলা শহরের ডিবি রোডে অবস্থিত একটি দোকান ঘর ভাড়া নেয়ার কথা বলে জবরদস্তিমূলক দোকান ঘরসহ জায়গা দখলে নেয়ার পাঁয়তারা করছে। এ ঘটনায় গতকাল রোববার গাইবান্ধা প্রেসকাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে জেলা শহরের ফকিরপাড়ার আবুল কালাম আজাদের ছেলে শামীম আহম্মেদ লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন, তার মাতা জরিনা খাতুনের নামে সদর উপজেলার গোবিন্দপুর মৌজার কবলা দলিল নং ৯৮২২, ১৫৩২, জেএল নং ৯৯, ডিপি খতিয়ান নং ১৪১০, দাগ নং ৬৯৮, তার নিজ নামীয় খারিজ খতিয়ান নং-১১৯৭১ এর মধ্যে ১৩ শতকসহ মোট ৩৮ জমি ভোগ দখলে রয়েছে।

এরমধ্যে ২ শতক জমি যমুনা মটরস স্বত্তাধিকারি আব্দুল ওয়ায়েদ তার দোকানের পাশেই অন্যের দোকান ভাড়া নিয়ে ব্যবসা করে আসছিল। কিন্তু গত ১১ মাস পূর্বে ওয়াহেদের ব্যবসা বর্ধিত করার কারণে শামীমের পরিবারের সাথে আলোচনা করে দোকান ঘর ভাড়া নেয়ার প্রস্তাব দেয়। এতে শামীম তার পরিত্যক্ত দোকান ঘরটি মেরামত সাপেক্ষে ঘর ভাড়া দেয়ার সম্মতি দিলে ওয়াহেমদ ঘরটি মেরামত করে ব্যবসার জন্য প্রস্তুত করে। এরপর ঘর ভাড়ার চুক্তি এবং জামানতের টাকা প্রদানে নানা তালবাহানা করতে থাকে।

এ নিয়ে থানায় বেশ কয়েকবার বৈঠক হলে সেখানে দোকান ঘরের চুক্তি নামা এবং জামানত প্রদান করার কথা থাকলেও আজ পর্যন্ত প্রদান করা হয়নি। এব্যাপারে ওয়াহেদ মিয়াকে গত ১০ অক্টোবর দোকান ঘরটি ছেড়ে দেয়ার কথা বললে তখন থেকেই তিনি প্রকাশ্যে তাকে হত্যাসহ নানা ধরণের হুমকি প্রদান করে আসছেন।

শুধু তাই নয়, তাকে মেরে ওই দোকানের ভেতর পুঁতে রাখারও হুমকি প্রদান করে। সংবাদ সম্মেলনে আরও বলেন, তিনি ঢাকায় একটি বেসরকারি কোম্পানীতে চাকরি করেন। বাড়িতে তার বৃদ্ধা মাতা একাই থাকে। ফলে ভুমিদস্যু কালো টাকার মালিক সন্ত্রাস প্রকৃতির ওয়াহেদ মিয়ার ভয়ে তার বৃদ্ধা মাসহ তার পরিবারের লোকজন আতংকের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন শামীমের ছোট ভাই শওকত আলী শাহীন। 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়