• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ৪-১২-২০২২, সময়ঃ বিকাল ০৩:২৯
  • ৭৯ বার দেখা হয়েছে

গাইবান্ধা জেলা পরিষদের ৬নং ওয়ার্ড সদস্যের পদ বাতিলের দাবি

গাইবান্ধা জেলা পরিষদের ৬নং ওয়ার্ড সদস্যের পদ বাতিলের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক ►

সদ্য অনুষ্ঠিত গাইবান্ধা জেলা পরিষদের ৬নং ওয়ার্ড সদস্য সাখাওয়াত হোসেনের সদস্য পদ বাতিলের দাবিতে হাইকোর্টে দায়েরকৃত রিট আবেদনকারি সদস্য পদ প্রার্থী মো. আশরাফুল ইসলাম গতকাল রোববার গাইবান্ধা প্রেসকাবে এক সংবাদ সম্মেলন করেন। 
সংবাদ সম্মেলনে প্রার্থী মো. আশরাফুল ইসলাম লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করেন, গত ১৭ অক্টোবর জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৬নং ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য পদে তিনি টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচন শেষে ভোট গণনার বিবরণী ফলাফল সিটটি প্রিজাইডিং অফিসারের কাছে চাওয়া হলে তিনি ভোটের ফলাফল সীটে ৪২ ভোট হাতে লিখে দেন এবং তার এজেন্ট ইভিএম’র প্রিন্ট কপি দেখতে চাইলে তাকে দেয়া হয়নি।

কিন্তু তিনি ৬৪ ভোট পেয়েছিলেন। সেময় ভোটের সংখ্যা পাল্টে দিয়ে তার স্থলে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী মো. সাখাওয়াত হোসেন (হাতি) প্রতীককে ৬৪ ভোট দেখিয়ে তাকে নির্বাচিত দেখানো হয়। সেসময় আশরাফুল তাৎক্ষনিকভাবে এর প্রতিবাদ করেন এবং গত ২৬ অক্টোবর প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবরে নির্বাচনী ফলাফল স্থগিত করার জন্য আবেদন জানান। 

তিনি জানান, সাখাওয়াত হোসেন বিগত জেলা পরিষদের একজন সদস্য ছিলেন। সেই সময় তিনি সাঘাটা টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের (ইনডেক্স নং ১৩২৫০৪৮৭, সোনালী ব্যাংক, বোনারপাড়া শাখা, হিসাব নং ৩৪০২৬৮২৫) প্রভাষক হিসেবে চাকরি করেন। একই সঙ্গে তিনি জেলা পরিষদের সম্মানী ভাতা ও কলেজের চাকরির সুবাদে বেতন-ভাতাদি উত্তোলন করছেন। এদিকে গত ৩ নভেম্বর সাঘাটার ৬নং ওয়ার্ডে তার সদস্য পদ বাতিলের জন্য হাইকোর্টে (নং ১৩৩০৩) রিট দাখিল করে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার জন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনের কাছেও আবেদন করেছেন।

সংবাদ সম্মেলন উপস্থিত ছিলেন ৬নং ওয়ার্ডে অংশ নেয়া তিন প্রার্থী আব্দুল কুদ্দুস আকন্দ, মো. এটিএম সাখাওয়াত হোসেন রুবেল ও মো. শামছুজ জোহা। অপরদিকে নবনির্বাচিত জেলা পরিষদ সদস্য সাখাওয়াত হোসেন জানান, তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সঠিত নয়। 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়