• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ৯-১০-২০২২, সময়ঃ দুপুর ০২:০৬
  • ১৮৭ বার দেখা হয়েছে

ফুলছড়িতে আ’লীগের নির্বাচনী অফিস ভাংচুর

ফুলছড়িতে আ’লীগের নির্বাচনী অফিস ভাংচুর

ফুলছড়ি প্রতিনিধি ►

গাইবান্ধা-৫ (সাঘাটা-ফুলছড়ি) আসনের উপনির্বাচনকে ঘিরে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মাহমুদ হাসান রিপনের নির্বাচনী অফিস ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার দিবাগত রাতে ফুলছড়ি উপজেলার উদাখালী ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের নাড্ডারমোর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। 

আজ রবিবার সকালে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী অফিস ভাংচুরের বিষয়টি জানাতে পারে স্থানীয় নেতাকর্মীরা। নির্বাচনী অফিসে থাকা বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবিসহ নির্বাচনী অফিসে থাকা টেবিল চেয়ার ভাংচুর করা হয়েছে। 

গতকাল রাতে কে বা কাহারা এ অফিস ভাংচুর করেছে তা নিশ্চিত করে কেউ বলতে পারছে না। তবে এ ব্যাপারে উদাখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আফতার আলী সরকার বলেন, নৌকা মার্কার জয় সুনিশ্চিত জেনে, বিপক্ষ যে কোন গ্রুপ রাতের আঁধারে অফিস ভাংচুর করেছে বলে আমরা মনে করছি। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবী তাদের। আওয়ামীলীগ নেতা গোলাম মওলা বলেন, আমরা এই ঘৃন অপরাধের সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার জোর দাবী করছি। 

এই ঘটনা প্রসঙ্গে ফুলছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান টেলিফোনে এ প্রতিবেদককে জানান, আমি শুনেছি জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ছবিসহ আমাদের ওই নির্বাচনী অফিসে থাকা চেয়ার টেবিল ভাংচুর করা হয়েছে। আমি ব্যাক্তিগত ভাবে মনে করছি নৌকা মার্কার প্রার্থী মাহমুদ হাসান রিপনের জয় সুনিশ্চিত জেনে বিপক্ষ গ্রুপ এ কাজটি করেছে। আমি এই ভাংচুরের সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি।

এ প্রসঙ্গে ফুলছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ কাওছার আলী বলেন, গাইবান্ধা-৫ ফুলছড়ি-সাঘাটা আসনের উপনির্বাচনের নৌকা মার্কার নির্বাচনী অফিস ভাংচুরের ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ দায়ের হয়নি। 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়