• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ৭-১২-২০২২, সময়ঃ সন্ধ্যা ০৬:৩৭
  • ১০৬ বার দেখা হয়েছে

ফুলছড়িতে একটি কলেজ নিয়ে একই স্থানে দুইপক্ষের কর্মসূচি

ফুলছড়িতে একটি কলেজ নিয়ে একই স্থানে দুইপক্ষের কর্মসূচি

ফুলছড়ি (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি ►

গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার উদাখালী মডেল কলেজের অধ্যক্ষের পক্ষে-বিপক্ষে কর্মসূচি নিয়ে উত্তেজনা। অধ্যক্ষের পক্ষে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ হলেও বিপক্ষে অবস্থানকারীরা তাদের ঘোষিত মানববন্ধন কর্মসূচি স্থগিত করেছে। 

ফুলছড়ি উপজেলা সদরে ১৯৯৯ সালে উদাখালী মডেল কলেজটি প্রতিষ্ঠিত হয়। দীর্ঘদিন কলেজটি এমপিওভুক্ত না হওয়ায় কর্মরত অনেকেই চাকুরী ছেড়ে চলে যান। সরকার সম্প্রতি উক্ত কলেজটির এমপিও ঘোষণা করে। এরপর থেকে কলেজে চাকুরী ছেড়ে দেওয়া শিক্ষক-কর্মচারী, গভর্নিং বডির সাবেক সভাপতি ও সদস্যরা উদাখালী মডেল কলেজের অধ্যক্ষ এনামুল হকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ করে। এনিয়ে গাইবান্ধার আদালতে একটি মামলাও চলমান আছে।

উদাখালী মডেল কলেজের অধ্যক্ষ এনামুল হকের দুর্নীতির প্রতিবাদে বুধবার সকাল ১১টায় উপজেলা পরিষদ গেটের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচির ঘোষণা দিয়ে মঙ্গলবার বিকেলে মাইকিং করেন ফুলছড়ি উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের পক্ষ থেকে সদস্য সচিব আব্দুর রহিম। এরপর উক্ত কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরাও একইস্থানে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের পাল্টা কর্মসূচি ঘোষণা করেন। বুধবার (৭ ডিসেম্বর) সকাল থেকে উভয় পক্ষের লোকজন ফুলছড়ি উপজেলা পরিষদ গেটে অবস্থান নেন।

এসময় ঘটনাস্থলে ফুলছড়ি থানার পক্ষ থেকে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। দুপুর ১২টার দিকে উদাখালী মডেল কলেজ নিয়ে একটি পক্ষ ষড়যন্ত্র করছে দাবী করে কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবক ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরা বিক্ষোভ মিছিল করে। বিক্ষোভ মিছিলটি উপজেলা সদরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে উপজেলা পরিষদ গেটে সমাবেশে বক্তব্য দেন, উদাখালী মডেল কলেজের অধ্যক্ষ এনামুল হক, ফুলছড়ি উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার হাবিবুর রহমান, প্রভাষক সাইদুর রহমান, কঞ্চিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লিটন মিয়া, উপজেলা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি জয় সরকার, উদাখালী মডেল কলেজের ছাত্র আসলাম মিয়া প্রমুখ। 

সমাবেশে বক্তারা বলেন, উদাখালী মডেল কলেজটি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর দীর্ঘদিন এমপিওভূক্ত না হওয়ায় অনেকে চাকুরী ছেড়ে চলে গেছেন। কলেজের দু:সময়ে তারা কোন খোজ খবর রাখেনি। কলেজটি এমপিওভুক্ত হওয়ার পর থেকে একটি একটি পক্ষ ষড়যন্ত্র করছে। তারা অধ্যক্ষের অনিয়মের মিথ্যা অভিযোগ তুলে আদালতে মামলা করেছে। এখন তারা অপপ্রচারে নেমেছেন। তাদের কারণে কলেজের ক্ষতি হোক এটা এলাকাবাসী চায় না। তাই যেকোন মূল্যে চক্রান্তকারীদের প্রতিহত করা হবে। 

অপরদিকে, পরিস্থিতি অনুকূলে না থাকায় দুপুর ১২টায় পূর্বঘোষিত কর্মসূচি স্থগিত ঘোষণা করে আবারও মাইর্কিং করেন, ফুলছড়ি উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম। তিনি বলেন, অনিবার্য কারণে আজকের কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে। এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে পরবর্তী করণীয় জানানো হবে। 
 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়