• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ২৬-১২-২০২২, সময়ঃ বিকাল ০৫:৩৪
  • ১৬৬ বার দেখা হয়েছে

ফুলছড়িতে ২৮৯১টি ভিডব্লিউবি কার্ডের বিপরীতে আবেদন ৫৯৮৪টি

ফুলছড়িতে ২৮৯১টি ভিডব্লিউবি কার্ডের বিপরীতে আবেদন ৫৯৮৪টি

ফুলছড়ি (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি ►

গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে ভিডব্লিউবি (২০২৩-২৪) চক্রের কার্ডের জন্য অনলাইনে মোট আবেদন জমা পড়েছে ৫ হাজার ৯৮৪টি। সরকারের সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর অধীনে ভালনারেবল উইমেন বেনিফিট (ভিডব্লিউবি) কার্ড কর্মসূচির এ আবেদনের সময়সীমা শেষ হয়েছে গত ২৫ নভেম্বর। ইউনিয়ন পর্যায়ের যাচাই-বাছাইয়ের ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। এখন উপজেলা পর্যায়ের যাচাই-বাছাইয়ের কাজ চলছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফুলছড়ি উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা পাপিয়া সুলতানা। ভিডব্লিউবি মূলত গ্রামীণ অসহায়, দুস্থ মহিলাদের কার্ডের মাধ্যমে ২ বছর মেয়াদি প্রতিমাসে ৩০ কেজি চাল সহায়তার একটি কর্মসূচি। পূর্বে এ কর্মসূচির নাম ছিল ভিজিডি। যার বর্তমান নাম ভিডব্লিউবি।

ফুলছড়ি মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, ইউনিয়নের আয়তন, দারিদ্রতা ও পিছিয়ে পড়া নারী জনগোষ্ঠীর অবস্থার পরিস্থিতি বিবেচনায় ফুলছড়ি উপজেলায় বরাদ্দকৃত মোট ভিডব্লিউবি কার্ডের সংখ্যা ২ হাজার ৮৯১টি। এর বিপরীতে মোট আবেদন পড়েছে ৫ হাজার ৯৮৪টি। ইউনিয়নভিত্তিক আবেদন সংখ্যার মধ্যে কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নে সর্বোচ্চ সংখ্যক আবেদন জমা পড়েছে। এ ইউনিয়নে মাত্র ৪৯১টি কার্ডের বিপরীতে অনলাইনে আবেদন করেছে ১ হাজার ৫২২ জন, উড়িয়া ইউনিয়নে বরাদ্দকৃত ৩০৪টি কার্ডের বিপরীতে আবেদন করেছে ৫৮০ জন।

এরকম উদাখালী ইউনিয়নে ৪৭২টি কার্ডের বিপরীতে এক হাজার ৮৫ জন, গজারিয়া ইউনিয়নে ৩৬৯টি কার্ডের বিপরীতে ৬৭৪ জন, ফুলছড়ি ইউনিয়নে ৪১৬টি কার্ডের বিপরীতে ৮২২ জন, এরেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নে ৫০৩টি কার্ডের বিপরীতে ৭৪৯ জন এবং ফজলুপুর ইউনিয়নে ৩৩৬টি কার্ডের বিপরীতে ৫৫২ জন নারী অনলাইনে আবেদন করেছেন।

ফুলছড়ি উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা পাপিয়া সুলতানা বলেন, ‘অনলাইনে আবেদনকারীদের মধ্যে থেকে যাচাই-বাছাই করে প্রতিটি ইউনিয়ন কমিটি চাহিদার অতিরিক্ত নামের তালিকা জমা দিয়েছে। এখন উপজেলা কমিটির পক্ষ থেকে যাচাই-বাছাই করে উপকারভোগীদের তালিকা চুড়ান্ত করা হবে।’
 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়