• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ৮-১০-২০২২, সময়ঃ দুপুর ০২:৪২
  • ২২৭ বার দেখা হয়েছে

ফুলবাড়ীতে কাকতাড়ুয়া দিয়ে ইঁদুর তাড়ানোর চেষ্টা

ফুলবাড়ীতে কাকতাড়ুয়া দিয়ে ইঁদুর তাড়ানোর চেষ্টা

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি ►

অনুকুল আবহওয়া, ভালোবৃষ্টি, সঠিক পরিচর্চায় আমন তেগুলি সবুজ ও পুরুষ্ট হয়ে উঠেছে । আর কিছু দিনের মধ্যই ধান ঘরে তোলার স্বপ্ন বুনছে কৃষক। এমনি সময়ে ধান ক্ষেত্রে ইদুরের আক্রমনে কৃষকের সে স্বপ্ন ¤øান হতে চলেছে। 

সরেজমিন ঘুরে জানা গেছে, প্রতিটি এলাকায় ইদুরের উৎপাত ঠেকাতে কৃষক হিমসিম খাচ্ছেন। কাইছথোড় (পেটে শিষ থাকে) হওয়া ধান কেটে ইঁদুর সাবাড় করলেও প্রতিকার করতে পারছে না কৃষক। ইঁদুরের হাত থেকে ফসল রার বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করেও শেষ রা হচ্ছে না।

ধোর হওয়া ধান গাছ কেটে ভিতরের শিষের অংকুর খাওয়া ইঁদুর গর্তে থাকেনা। এরা ডোবা লালার কুচুরিপানায়, জোপ-ঝাড়, জঙ্গলে ও গাছে বাস করে। রাতের বেলা ওই সব এলাকা থেকে বের হয়ে ধান কেটে সাবার করে দিনের বেলায় পূর্বের বাসস্তানে চলে যায়। এরা গর্তে থাকে না বলে বিষ বা গ্যাস টোপ দিয়ে মারা যায় না। এই ইঁদুর বিষমিশ্রত খাবারও খেতে চায় না।

দেখতে স্বাভাবিক ইঁদুর এর চেয়ে অনেক বড়। খুব দ্রুত চলাফেরা করতে পারে। ইঁদুরের হাত থেকে রা পেতে কৃষক ঝান্ডা লাগিয়ে বা কাক তাড়ুয়া দিয়ে ইঁদুর তারানোর চেষ্টা করছেন কৃষকরা।

দক্ষিণ বড়ভিটা গ্রামের কৃষক শ্রী সুজিত চন্দ্র রায় ও আনু ইসলাম পাঠান বলেন, ঝান্ডা বা কাক তাড়ুয়া দিয়ে ইঁদুরকে ভয় দেখিয়ে সাময়িক ধান কাটা থেকে বিরত রাখা যায়। পনিথিনের ঝান্ডা বাতাসে উড়লে এক ধরনের শব্দ হয়। সেই শব্দে ইদুর পালিয়ে যায়। তবে এই ব্যবস্থা বাতাস উঠলে কাজে লাগে। আনু ইসলাম পাঠান বলেন, তার এক বিঘা জমির ধান থোড় হওয়া থেকে কেটেই চলছে।

অনেক জায়গায় ফসল রায় কৃষক রাত জেগে ফাঁসি জাল ও হাতে তৈরি ঢিকা ফাঁদ পেতে দু একটি ইদুর ধরছেন। অনেকে টছলাইট জ্বালিয়ে রাতে তে থেকে ইদুর তাড়াচ্ছেন। তবে কোন ব্যবস্তাই গেছো ইঁদুরের হাত থেকে শতভাগ ফসল রা করা যাচ্ছে না। 

বড়ভিটা ইউনিয়নের উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মো: আসরাফুল আলম বলেন, গ্রামের কৃষকদের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরী ফাঁদ দিয়ে অনেকেই গেছো ইঁদুর মেরেছেন। কলার পাতা আক্রান্ত স্থানে ফেলে রাখা, ইঁদুর থাকার স্থানের ঝোপ-ঝাড় পরিষ্কার করা ও ইঁদুরের গর্তে সরিষা দেওয়া ও ইহা ছাড়াও জিংঙ্ক ফসপেট ২ দিয়ে ইঁদুর তাড়ানোর পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।
 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়