• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ২১-১০-২০২২, সময়ঃ বিকাল ০৩:০৭
  • ১০৪ বার দেখা হয়েছে

ফুলবাড়ীতে তন্ত্র-মন্ত্রের ঐতিহ্যবাহী ‘পাতা খেলা’ অনুষ্ঠিত শত শত নারী-পুরুষ দর্শকের সমাগম

ফুলবাড়ীতে তন্ত্র-মন্ত্রের ঐতিহ্যবাহী ‘পাতা খেলা’ অনুষ্ঠিত শত শত নারী-পুরুষ দর্শকের সমাগম

ধীমান চন্দ্র সাহা, ফুলবাড়ী  ►

ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী তন্ত্র-মন্ত্রের ‘পাতা খেলা’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলার কড়াই যুব সমাজের উদ্যোগে এবং সমাজবেসী আজম মণ্ডল রানার পৃষ্টপোষকতায় গত বৃহস্পতিবার বিকেলে সাড়ে ৫ টা থেকে রাত সাড়ে ৮ টা পর্যন্ত পুখুরী স্কুল এ- কলেজ মাঠে এই খেলাটি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

প্রধান অতিথি হিসেবে খেলার উদ্বোধন করেন সমাজসেবক আজম মণ্ডল রানা। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ফুলবাড়ী প্রেসকাবের সভাপতি সহকারী অধ্যাপক অমর চাঁদ গুপ্ত অপু, সাবেক ইউপি সদস্য বেলাল হোসেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান, আয়োজক সংগঠনটির সভাপতি রেজাউল ইসলাম, সহসভাপতি বদিউজ্জামান বদরুল প্রমুখ। এ সময় ফুলবাড়ী প্রেসকাবের সাধারণ সম্পাদক ওয়াহিদুল ইসলাম ডিফেন্স, সাংগঠনিক সম্পাদক ফিজারুল ইসলাম ভুট্টু, উপজেলা প্রেসকাবের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান উজ্জ্বল, দৈনিক দেশ মা পত্রিকার যুগ্ম বার্তা সম্পাদক প্লাবন শুভ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

সরেজমিনে দেখা যায়, মাঠের মাঝখানে পুঁতে রাখা হয়েছে একটি কলাগাছ। গোড়ায় পানিভর্তি মাটির ঘটি। খেলায় চারজন মন্ত্রী (ওঝা বা তান্ত্রিক) এবং তিনজন পাতা হিসেবে অংশ নেন। এরা হলেন, আমড়া গ্রামের আতিয়ার সর্দার, রশিদপুর মিরপুর গ্রামের নুরুজ্জামান, কড়াই পশ্চিম পাড়ার আলম এবং মাদিলাহাটের মিলন। অন্যদিকে পাতা হিসেবে অংশ নেন জাহিদুল ইসলাম, মোশারফ হোসেন এবং ভোলা।

জানা যায়, খেলায় ওঝা বা তান্ত্রিক মন্ত্রের সাহায্যে বেশি পাতাকে বস করে দাগের বাইরে নিয়ে নিজেদের কাছে আনতে পারলে সেই ওঝা বা তান্ত্রিক জয়লাভ করবেন। অন্যদিকে পাতা ওঝার মন্ত্রে নিজেকে স্থির রেখে দাগের ভেতরে থাকতে পারলে তাকেও বিজয়ী বলে ঘোষণা করা হয়। ওঝা তার ল্য পূরণে ‘দুই চোখে দেখাদেখি/চার চোখে টানাটানি/সপ্ত চোখে বস/ওরে বম/আমাকে ছাড়িয়া যদি অন্যদিকে যাস/দোহাই তোর-মহাদেব/দোহাই তোর- ঈশ্বরের মাথা খাস’ মন্ত্রের সাহায্যে পাতাকে বস করে দাগের বাইরে নিয়ে আসতে কৌশল অবলম্বন শুরু করেন। টানা প্রায় ৩ ঘণ্টা পর শেষ হয় তন্ত্র-মন্ত্রের এই ‘পাতা খেলা’।

কড়াই পশ্চিম পাড়ার আলমের দল দুইটি পাতা টেনে চ্যাম্পিয়ন এবং মাদিলাহাটের মিলনের দল একটি পাতা টেনে রানার্সআপ হন। শেষে চ্যাম্পিয়ন দলকে খাসি ও রানার আপ দলকে রাজহাঁস তুলে দেন অতিথিদ্বয়। খেলায় অংশ নেয়া ওঝা বা তান্ত্রিকরা মিলন, আলম ও নূরুজ্জামান  বলেন, ‘পাতা খেলা’ গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলা। এখানে তান্ত্রিকদের মন্ত্রের শক্তি পরীা হয়। জয়-পরাজয় বড় কথা নয়। এ খেলার মাধ্যমে হাজারো দর্শক আনন্দ দেওয়া হয়। খেলোয়াড় হিসেবে নিজেদেরও গর্ব লাগে। খেলায় তন্ত্র-মন্ত্রের শক্তিতে যে যতবেশি পাতা টেনে নিজেদের কাছে আনতে পারেন, তারাই বিজয়ী হন। 

সমাজসেবী আজম ম-ল রানা বলেন, গ্রাম বাংলা ঐতিহ্যবাহী পাতা খেলার মাধ্যমে এলাকার মানুষকে বিনোদন দিতে এই আয়োজন অব্যাহত থাকবে। খেলা দেখতে শত শত সব বয়সী নারী-পুরুষের সমাগম ঘটে খেলার মাঠে। এদিকে খেলাটিকে ঘিরে মাঠের চারিপাশে বসেছিল বাহারী খাবারের ও পণ্যের দোকান। 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়