• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ২৪-১১-২০২২, সময়ঃ সন্ধ্যা ০৬:০৩
  • ৫৩ বার দেখা হয়েছে

বিএনপির কাজই হচ্ছে সব সময় গুজব ছড়ানো

বিএনপির কাজই হচ্ছে সব সময় গুজব ছড়ানো

মাধুকর ডেস্ক ►

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আপনারা নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করে আপনাদের সেবা করার সুযোগ দিয়েছেন। আমি আপনাদের কাছে ওয়াদা চাই, আগামী নির্বাচনেও আপনারা নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে সেবা করার সুযোগ দেবেন।

বৃহস্পতিবার বিকেলে যশোর শহরের শামস-উল হুদা স্টেডিয়ামে আওয়ামী লীগের জনসভায় এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যশোরে জনসভা করতে পেরে আমি আনন্দিত। এই যশোরে আমার নাড়ির টান আছে। এখানের মাটিতে আমার নানা শেখ জহুরুল হক শুয়ে আছেন। তিনি যশোরে চাকরি করতেন। আমার মায়ের বয়স যখন তিন বছর ছিল তখন তিনি মারা যান। ওই সময় যোগাযোগ ব্যবস্থা এতই খারাপ ছিল, এর কারণে এখানে আসা যায়নি। তাই আমার নানাকে এখানে দাফন করা হয়েছে। এখানে আমার নানার স্মরণে আইটি পার্ক করা হবে।

যশোর শহরের শামস-উল হুদা স্টেডিয়াম সংস্কার করা হবে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, এজন্য যা যা দরকার আমাদের সরকার কাজ করবে। আমি আপনাদের দোয়া ও ভালোবাসা চাই। একইসঙ্গে আপনাদের কাছে ওয়াদা চাই, আপনারা আগামী নির্বাচনে আবারও নৌকায় ভোট দিয়ে আমাদের জয়যুক্ত করবেন। আপনারা যা চাইবেন, আমি তার চেয়ে বেশি দেবো।

দক্ষিণাঞ্চলে আরও উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সরকার প্রধান বলেন, বিগত দিনে দেশের উন্নয়ন করেছি। আপনারা সুযোগ দিলে আগামী দিনেও উন্নয়ন করবো। কাজেই ওয়াদা দেন, আবারও নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে জয়যুক্ত করবেন।

যশোরবাসীর প্রতি গুজবে কান না দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপির কাজই হচ্ছে সব সময় গুজব ছড়ানো। ওরা নিজেরা কিছু করতে পারে না। ক্ষমতায় যখনই এসেছে, লুটপাট করে খেয়েছে।

তিনি বলেন, যে বাংলাদেশকে খালেদা জিয়া রেখে গিয়েছিল; প্রায় ৪০ ভাগ মানুষ দরিদ্রসীমার নিচে বাস করতো। এটাকে আমরা কমিয়ে ২০ ভাগে এনেছি। আমরা যদি আরও কমাতে পারতাম তাহলে বাংলাদেশে দরিদ্র বলে কেউ থাকতো না। হত দরিদ্র ২৫ ভাগ ছিল, সেটা আমরা ১০ ভাগে নামিয়ে এনেছি। 

তিনি আরও বলেন, আমরা মানুষের কথা চিন্তা করি। করোনার সময় আমরা মানুষের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ করেছি। এমন কোনো শ্রেণি-পেশার মানুষ নেই যাদের আমরা সহযোগিতা করিনি। যেসব স্কুল এমপিওভুক্ত না, সেসব শিক্ষকের কাছেও আমি টাকা পাঠিয়েছি। মসজিদের ইমাম-মোয়াজ্জিন থেকে শুরু করে আমাদের শিল্পী, প্রত্যেককে আমরা সহযোগিতা দিয়েছি। আমরা এ দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করেছি। টাকা আমরা জনগণকে দিয়ে দিয়েছি। গ্রামে গ্রামে টাকা পাঠিয়েছি যেন করোনার সময় কোনো মানুষের কষ্ট না হয়।
 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়