• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ১৪-১০-২০২২, সময়ঃ বিকাল ০৩:৩৪
  • ৭৮ বার দেখা হয়েছে

বৈদ্যুতিক শর্ট সাকিটের আগুনে পুড়ে ছাই গোবিন্দগঞ্জের পত্রিকার হকার হেলাল উদ্দিনের বাড়ি

বৈদ্যুতিক শর্ট সাকিটের আগুনে পুড়ে ছাই গোবিন্দগঞ্জের পত্রিকার হকার হেলাল উদ্দিনের বাড়ি

মহিমাগঞ্জ প্রতিনিধি  ► 

প্রতিদিনের মতোই পত্রিকা বিলি করতে গিয়েছিলেন গোবিন্দগঞ্জ শহরে। কাজ শুরুর আগেই প্রতিবেশীর মোবাইল ফোনে খবর পেলেন তার বাড়িটি আগুনে পুড়ে যাচ্ছে। তড়িঘড়ি করে ফিরে এসে তিনি দেখতে পেলেন বাড়ির ভিটায় পুড়ে যাওয়া টিনের বাক্স আর কাঁথা-বালিশ ধরে কাঁদছেন তার বৃদ্ধা মা আর স্ত্রী। শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) সকাল ১১টার দিকে হঠাৎ এ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় তার দুটি ঘর সামান্য সময়ের মধ্যে সম্পূর্ণরূপে পুড়ে যায়। বৈদ্যুতিক শর্ট সাকিটের আগুনে পুড়ে ভস্মিভ’ত হয়ে যাওয়া ছোট্ট বাড়িটি গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শহরের পত্রিকার হকার মো: হেলাল উদ্দিনের।  এ সময় বৈদ্যুতিক লাইন চালু থাকায় সাহায্য করতে প্রতিবেশীরা কেউ কাছে যেতে না পারায় সবার চোখের সামনেই ধ্বংস হয়ে যায় বাড়িটি। 

উপজেলার মহিমাগঞ্জ ইউনিয়নের জিরাই পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দা পক্রিকার হকার হেলাল জানান, প্রতিদিনের মতোই শুক্রবার সকালে তিনি গোবিন্দগঞ্জ শহরে যান পত্রিকা বিক্রি করতে। সেখান থেকে ফোনে  আগুন লাগার খবর পেয়ে বাড়িতে ফিরে দেখেন তার দুটি ঘরই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এ সময় হেলালের স্ত্রী ও মা ঘরে তালা দিয়ে ইউনয়ন পরিষদে গিয়েছিলেন। মাত্র পাঁচ মিনিটের এ আগুনে ঘরের ভিতরে বাক্সের মধ্যে রক্ষিত বাড়ি তৈরির জন্য সঞ্চিত ৬০ হাজার টাকা, ৫ হাজার টাকার প্রাইজবন্ড,  বিছানা ও পোষাকসহ সমুদয় জিনিসপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায় বলে জানান তারা। খবর পেয়ে গোবিন্দগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিলেও আগুন নিভে যাওয়ার খবর পেয়ে মাঝ পথ থেকে ফিরে গেছে বলে জানিয়েছে। 

মহিমাগঞ্জ ইউনয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম প্রধান ও স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহীন শেখ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ প্রধান ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারটিকে যথাসাধ্য সহায়তার আশ্বাস প্রদান করেছেন। 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়