• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ১৭-১১-২০২২, সময়ঃ বিকাল ০৫:৪৫
  • ১০৪ বার দেখা হয়েছে

শিল্পকলা একাডেমির কার্যনির্বাহী কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠান

শিল্পকলা একাডেমির কার্যনির্বাহী কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠান

মোদাচ্ছেরুজ্জামান মিলু ►

গাইবান্ধা জেলা শিল্পকলা একাডেমির নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহীক মিটির অভিষেক অনুষ্ঠান বুধবার জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। এ অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা শিল্পকলা একাডেমির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মো. অলিউর রহমান। 

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) রবিউল হাসানের সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা কালচারাল অফিসার মো. আলমগীর কবির এবং বিশেষ অতিথিদেও মধ্যে বক্তব্য রাখেন গাইবান্ধার পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম পিপিএম, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ গাইবান্ধা জেলা ইউনিটএর সাবেক কমান্ডার বীরমুক্তিযোদ্ধা মাহমুদুল হক শাহজাদা, গাইবান্ধা সদও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ সারোয়ার কবীর ও গাইবান্ধা পৌর সভার প্যানেল মেয়র শহিদ আহমেদ। 

এছাড়াও বক্তব্য রেখেছেন শিল্পকলা একাডেমির নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক প্রমতোষ সাহা। শুরুতে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিদের যেমন ফুলেল শুভেচ্ছায় অভিষিক্ত করা হয়, তেমনি কার্যনির্বাহী কমিটির নব নির্বাচিত কর্মকর্তাদেরও ফুলেল শুভেচ্ছা দেওয়া ও উত্তরীয় পরিয়ে দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানের ধারাবাহিকতায় নব নির্বাচিত কর্মকর্তাদেও শপথ পাঠক করান জেলা শিল্পকলা একাডেমির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মো. অলিউর রহমান। শপথ গ্রহণ করেন সহ-সভাপতি হিসেবে শাহ মশিউর রহমান ও খাজা সুজন, সাধারণ সম্পাদক পদে প্রমতোষ সাহা, যুগ্ম সম্পাদক পদে অমিতাভ দাশ হিমুন এবং চুনি ইসলাম, সদস্য পদে মাহমুদ সাগর মহব্বত, আ.স.ম রেজাউন্নবী রাজু ও নিয়াজ রহমান লোটন।

নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক প্রমতোষ সাহা তাঁর বক্তব্যে জেলা প্রশাসকসহ জেলা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানান এবং নির্বাচিত সকল কর্মকর্তাদেরও অভিনন্দন জানান। তিনি জেলা শিল্পকলা একাডেমির সকল আজীবন সদস্য ও সাধারণ সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তাদের নির্বাচিত করার জন্য। জেলা প্রশাসক ও শিল্পকলা একাডেমির সভাপতি মো. অলিউর রহমান তাঁর বক্তব্যে বলেন-যদিও গতবছরের নভেম্বরে এই ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে কিন্তু অনিবার্য কারণে অভিষেক অনুষ্ঠান করা সম্ভব হয়নি।

জেলা শিল্পকলা একাডেমি হচ্ছে জেলার সকল সাংস্কৃতিক সংগঠনসমূহের অভিভাবক সংগঠন। বাংলাদেশ সরকার দেশের সংস্কৃতিকে সৃজনশীল করার জন্য ব্যাপকভাবে কাজ কওে যাচ্ছে। গাইবান্ধা জেলার সকল শিল্প, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো শিল্পকলা একাডেমিতে আসবে ও মুক্ত মনে সৃজনশীলতার সংস্কৃতির চর্চা করবে বলে তিনি তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন। 

অভিষেক অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ পর্বে সংগীত পরিবেশ করেন শাহ মশিউর রহমান, খাজা সুজন, জাফরিন আলম এবং চুনি ইসলাম। এ ছাড়াও জাতীয় পর্যায়ে পুরস্কারপ্রাপ্ত নৃত্য শিল্পী সিথিলা প্রিয়ন্তি সাহা নৃত্য পরিবেশন করেন। যন্ত্র সংগীতে ছিলেন-তবলায় প্রমতোষ সাহা এবং মাহমুদ সাগর মহব্বত, কি বোর্ডে এসএম স্বাধীন, প্যাডে মানিক বর্মন এবং গিটাওে তানভির মাহতাব। অনুষ্ঠানের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত উপস্থাপনায় ছিলেন শিরিন আকতার। 


 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়