• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ৬-১২-২০২২, সময়ঃ বিকাল ০৪:১৫
  • ১৭৯ বার দেখা হয়েছে

সাঘাটায় পরিবার কল্যাণ সহকারী পদে নিয়মবহির্ভুতভাবে নিয়োগের অভিযোগ

সাঘাটায় পরিবার কল্যাণ সহকারী পদে নিয়মবহির্ভুতভাবে নিয়োগের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক ►

গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার জুমারবাড়ি ইউনিয়নের বগারভিটা কামারপাড়া (৩/ক) এলাকায় পরিবার  পরিবার কল্যাণ সহকারী পদে নিয়ম বিহির্ভুতভাবে নিয়োগের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবার গাইবান্ধা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিন প্রার্থী। তারা এই অবৈধ নিয়োগ বাতিল ও নিয়োগ প্রদানে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।  

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়, সাঘাটা উপজেলা জুমারবাড়ী ইউনিয়নের ৩/ক ওয়ার্ডের বগারভিটা কামারপাড়া গ্রামের পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের অধিনে পরিবার কল্যাণ সহকারি শূন্য পদে নিয়োগের জন্য গত ২৮ অক্টোবর লিখিত ও ২২ নভেম্বর মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

পরীক্ষায় জুমারবাড়ী ইউনিয়নের ৩/ক ওয়ার্ডের বগারভিটা, কামারপাড়ার স্থায়ী বাসিন্দা হিসেবে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ন হন মোরছানা আক্তার দিপা (রোল ১২০৮২৬৪৫), মুসলিমা জান্নাত লুপা (রোল ১২০৮২৬৪৬) ও মণিকা আক্তার (১২০৮২৬৪৭)। ৩০ নভেম্বর প্রকাশিত ফলাফলে ওই ইউনিয়নের ৩/খ ওয়ার্ডের দহিচড়ার গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা রাফিউজ হাবিবের স্ত্রী স্বর্ণা হাবিব (রোল নং ১২০৮২৬৪৮) কে চুড়ান্তভাবে উত্তীর্ণ দেখানো হয়। কিন্তু নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ৩/ক ওয়ার্ডের স্থায়ী বাসিন্দাকে নিয়োগ দেয়ার কথা থাকলেও অন্য এলাকার প্রার্থী স্বর্ণা হাবিবকে অনৈতিকভাবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

সাঘাটা উপজেলার পরিবার পরিকল্পনা ভারপ্রাপ্ত পরিদর্শক মো. রায়হানুল কবির রায়হান তাকে সহযোগিতা করছেন। তার পরামর্শেই বগারভিটা কামারপাড়া গ্রামে রাফিউজ হাবিব জনৈক মো. একরামুল হকের আবাদি জমিতে টিন সেড ঘর স্থাপন করে। সংবাদ সম্মেলনে নিয়োগ বঞ্চিত তিন প্রার্থী বিধিবহির্ভুতভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত উল্লেখিত স্বর্ণা হাবিবের নিয়োগ বাতিল, তাদের মধ্য থেকে নিয়োগ প্রদান ও জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়