• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ২২-১১-২০২২, সময়ঃ সকাল ১০:৩৮
  • ৭৫ বার দেখা হয়েছে

সেনেগালেকে হারিয়ে বিশ্বকাপ শুরু ডাচদের

সেনেগালেকে হারিয়ে বিশ্বকাপ শুরু ডাচদের

স্পোর্টস ডেস্ক  ►

সবচেয়ে বড় তারকা সাদিও মানেকে ছাড়াই মাঠে নামতে হয়েছে সেনেগালকে। তারপরও নেদারল্যান্ডসকে নাকানি-চুবানি খাইয়েছে দলটি।
একের পর এক আক্রমণে পাঁচ ডিফেন্ডার নিয়ে খেলতে নামা ডাচদের রণে ভয় তৈরি করেছিল আফ্রিকান চ্যাম্পিয়নরা। তবে সুযোগ পেয়ে হাতছাড়া করেনি নেদারল্যান্ডস। শেষ মুহূর্তে পরপর দুই গোল করে ম্যাচ নিজেদের করে নেয় লুই ফন গালের শিষ্যরা।

সোমবার রাতে কাতার বিশ্বকাপের ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে আল থুমামা স্টেডিয়ামে সেনেগালকে ২-০ ব্যবধানে হারায় নেদারল্যান্ডস। এই নিয়ে বিশ্বকাপের টানা নয় আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয় তুলে নেয় দলটি। ডাচদের হয়ে শেষমুহূর্তে গিয়ে গোল করে দলকে এগিয়ে নেন কোডি হাকপো। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে বাকি গোলটি করেন ডেভি কাসেন।

ম্যাচের শুরুতেই নেদারল্যান্ডসকে চেপে ধরে সেনেগাল। বেশ কয়েকটি আক্রমণ করে অবশ্য অভিষিক্ত গোলরক আন্ড্রিস নোপার্টের কাছে গিয়ে ব্যর্থ হতে হয়েছে তাদের। অপরদিকে বেশ কয়েকটি আক্রমণ সাজায় নেদারল্যান্ডসও। শেষদিকে গিয়ে সফলতা পায় তারা তবে প্রথমার্ধে একটি শটও রাখতে পারেনি ল্েয।

ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত ডাচরা। কোডি হাকপোর বাড়ানো নিচু ক্রস অবশ্য কেউ স্পর্শ করতে পারেননি। ১৯তম মিনিটে আবারও সুযোগ পায় দলটি। তবে ডি-বক্সে স্টিভেন বেরহাসের বাড়ানো বল ঠিকঠাক শট নিতে পারেননি ডি ইয়ং। ৪০তম মিনিটে বেরহাসের শট একটুর জন্য ল্যভ্রষ্ট হয়। 

বিরতির পর খেলতে নেমে আক্রমণে ধার আরও বাড়ায় সেনেগাল। ৫৫তম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত দলটি। বক্সের সামনে বল পেয়ে বুলেট গতির শট নেন সাবালি। তবে ডাচ ডিফেন্ডার নাথান আকের পায়ে লেগে তা ল্যভ্রষ্ট হয়। দশ মিনিট পর আবারও সুযোগ পায় সেনেগাল। নাম্পোলিস মঁদির পাস থেকে পাওয়া বল শট নেন দিয়া। তবে নোপার্ট দুর্দান্ত এক সেভে বাঁচিয়ে দেন ডাচদের।

৭১তম মিনিটে চোট পান সেনেগালিজ মিডফিল্ডার শেকু কুইয়াত। স্ট্রেচারে করে মাঠ ছাড়তে হয় তাকে। সাদিও মানের পর কুইয়াতকেও হারিয়ে বড় ধাক্কাই খেল আফ্রিকান চ্যাম্পিয়নরা। দুই মিনিট পর ইসমাইলা সার বল দেন গেয়িকে ল্য করে। বক্সের কাছ থেকে তার নেওয়া শট ঠেকিয়ে দেন নোপার্ট। 

৮৪তম মিনিটে গিয়ে গোলের দেখা পায় নেদারল্যান্ডস। প্রথমার্ধে সুযোগ নষ্ট করা সেই ডি ইংয়য়ের পাস পেয়ে বক্স থেকে নিখুঁত শটে জাল খুঁজে নেন হাকপো। ম্যাচের যোগ করা সময়ের শেষমুহূর্তে গিয়ে আরও একটি গোল ঠুকে দেয় ডাচরা। বদলি হয়ে নামা ডিপেইয়ের নেওয়া শট ঠেকিয়ে দিলেও বল নিয়ন্ত্রণে নিতে পারেননি সেনেগাল গোলরক। ফিরতি বল সহজ শটে ফাঁকা জালে পাঠান কাসেন। 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়