• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ২৬-১১-২০২২, সময়ঃ দুপুর ০২:৪৬
  • ৪৩ বার দেখা হয়েছে

হত্যা মামলা তুলতে রাজি না হওয়ায় বাড়ির রাস্তা বন্ধ বাদীর মানবেতর জীবনযাপন 

হত্যা মামলা তুলতে রাজি না হওয়ায় বাড়ির রাস্তা বন্ধ বাদীর মানবেতর জীবনযাপন 

নিজস্ব প্রতিবেদক ►

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় হত্যা মামলা তুলতে রাজি না হওয়ায় বাদী নুরুল ইসলামের বাড়ির যাতায়াতের বন্ধ করে দিয়েছে আসামি ও তার লোকজন। এমতাবস্থায় নিজের বাড়িতে বসবাস করতে না পেরে অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে বাদীর পরিবার। ঘটনাটি উপজেলার ছাপড়হাটি ইউনিয়নের দক্ষিণ মরুয়াদহ গ্রামের। এ ঘটনায় প্রতিকার ও ন্যায় বিচারের দাবীতে গতকাল শনিবার গাইবান্ধা প্রেসকাবে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে নুরুল ইসলাম লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন, ওই ইউনিয়নের দক্ষিণ মরুয়াদহ গ্রামে তার আপন বোন জোলেখা বেগমকে ২০০৫ সালের ২০ মার্চ ভগ্নিপতি আব্দুল হাই হত্যা করে। এ ঘটনায় তিনি বাদি হয়ে আব্দুল হাইকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা (নং ৭৪/২০০৬) দায়ের করেন। মামলাটি বর্তমানে বিচারাধীন রয়েছে। ওই মামলাটি তুলে নেয়ার জন্য আসামি আব্দুল হাই ও তার আত্মীয়-স্বজন একই গ্রামের ভূমিদস্যু আব্দুল জলিল, মিজানুর রহমান, বাবু মিয়া, বাবলু মিয়া, নুরুন্নবী মিয়া, রুহুল আমিন বাদশা, এনামুল হক, রানা মিয়া সংঘবদ্ধভাবে নুরুল ইসলামের বসতবাড়ির যাতায়াতের রাস্তা বাঁশের ঘেরা দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে।

এছাড়া মামলা তুলতে রাজি না হওয়ায় আসামিরা বাদীর মালিকানাধীন জমির বাঁশঝাড় কেটে অন্য আরেকটি রাস্তা তৈরী করে। এমতাবস্থায় তিনি নিজের বাড়িতে যেতে পারছেন না। ফলে গত ২০ এপ্রিল থেকে অদ্যাবধি তিনি পরিবারসহ অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। এব্যাপারে তিনি প্রতিকার ও ন্যায় বিচারের জন্য জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারসহ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়