• মাধুকর প্রতিনিধি
  • তারিখঃ ১৬-১১-২০২২, সময়ঃ সকাল ১০:০৫
  • ৮৬ বার দেখা হয়েছে

২০২৪ নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা ট্রাম্পের

২০২৪ নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা ট্রাম্পের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ►

আবারও যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হতে চান ডোনাল্ড ট্রাম্প। ২০২৪ সালে অনুষ্ঠিতব্য সাধারণ নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থী হতে চেয়ে মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

সমর্থকদের উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে ট্রাম্প বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রকে আবার মহান ও গৌরবময় করার জন্য আমি আজ প্রেসিডেন্ট পদে আমার প্রার্থিতা ঘোষণা করছি।

আগামী নির্বাচনে জিতলে ট্রাম্প হবেন যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে দ্বিতীয় প্রেসিডেন্ট, যিনি ভিন্ন ভিন্ন দুটি মেয়াদে নির্বাচিত হয়েছেন।

মঙ্গলবার রাতের ভাষণে ট্রাম্প স্বীকার করেছেন, সাম্প্রতিক মধ্যবর্তী নির্বাচনে তার দলের কিছুটা তি হয়েছে। কিন্তু এর ফলাফলকে চ্যালেঞ্জ করেননি তিনি। ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হার নিয়ে ট্রাম্প যে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিছিলেন, তা থেকে এটি উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন।

তবে মধ্যবর্তী নির্বাচনেও রিপাবলিকান প্রার্থীরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ার দায় নিজের ঘাড়ে নেননি সাবেক এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট। বরং বলেছেন, আমাদের দেশ যে বেদনার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, তার সম্পূর্ণ মাত্রা ও চাপ এখনো উপলব্ধি করতে পারেননি ভোটাররা। এরপরে ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন, ২০২৪ সালের ভোট হবে ‘অনেকটাই আলাদা’।

এবারের মধ্যবর্তী নির্বাচনে অনেক আশা জাগিয়েও মার্কিন কংগ্রেসের উচ্চক সিনেটের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারেনি রিপাবলিকানরা। নিম্নক প্রতিনিধি পরিষদের দখলও এখনো নিশ্চিত হয়নি। নির্বাচনে ট্রাম্প-সমর্থিত বেশ কয়েকজন হেভিওয়েট প্রার্থী হেরে গেছেন। এতে দলের ভেতর সাবেক প্রেসিডেন্টের প্রভাব কিছুটা হলেও মলিন হয়েছে। তাছাড়া, রন ডিসান্টিসের মতো তরুণ নেতাদের উত্থানেও চিন্তিত হয়ে পড়েছেন ট্রাম্প।

প্রার্থিতা ঘোষণার সময় তিনি বলেছেন, এখন থেকে ২০২৪ সালে নির্বাচনের দিন পর্যন্ত... আমি এমনভাবে লড়বো, যেভাবে কেউ কখনো লড়েনি। আমরা কট্টর বামপন্থি ডেমোক্র্যাটদের পরাজিত করবো, যারা আমাদের দেশকে ভেতর থেকে ধ্বংসের চেষ্টা করছে।

ট্রাম্প মতা ছাড়ার সময় হোয়াইট হাউজ থেকে রাষ্ট্রীয় গোপনীয় বহু নথিপত্র সঙ্গে নিয়ে গিয়েছিলেন বলে অভিযোগ বাইডেন প্রশাসনের। তার ফোরিডার মার-এ-লাগো রিসোর্ট থেকে বেশ কিছু নথি উদ্ধারও করেছেন গোয়েন্দারা। এ বিষয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্ত চলছে।

তবে এসব অভিযোগের বিষয়ে নিজেকে দোষীয় নয়, বরং ‘ভুক্তভোগী’ বলে দাবি করেছেন ট্রাম্প। তার বিরুদ্ধে চলমান তদন্তকে ‘বিচার ব্যবস্থাকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট।


 

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়